যেকোন গাড়ির চালক অথবা মালিকগনের জন্য অত্যন্ত সুখবর হলো, গাড়ীরখোজ ডটকম এর শুভাগমন!
এই ওয়েবসাইট ভিত্তিক এপস এ আপনি যুক্ত হলে, প্রথম থেকে যাত্রী না পেলেও, একসময় আপনাকে জনপ্রিয় ব্যবসায়ী হিসাবে পরিচিত করে তুলার একটা যুগোপযুগী মাধ্যম “গাড়ীরখোজ ডটকম“।
আপনি হয়ত জানতেই পারেননি, বিজ্ঞান কতটা প্রসারিত হচ্ছে, আর মোবাইল ফোন হচ্ছে বিজ্ঞানের একটা বিপ্লব!
যা ৯০ এর দশকের পর থেকে এখন পর্যন্ত তার প্রমান দিয়েই যাচ্ছে। পৃথিবীর সকল কাজ এখন অনলাইন ভিত্তিক সম্পাদন হচ্ছে। আপনি ইচ্ছা করলেও, সেই আগের যুগে ফিরে যেতে পারবেননা। আপনাকে বাধ্য হয়ে প্রযুক্তির ছায়াতলে আসতে হবে। যদি আসতে দেরী করেন, তাহলে পিছিয়ে যাবেন। এটা আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি যে, গাড়ীরখোজ ডটকমে শহর এবং গ্রামের সাধারন যাত্রীর গাড়ি ভাড়া করার জন্য অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইটে পরিনত হবে। এই ওয়েবসাইটকে এমন ভাবে সাজানো হয়েছে, একজন যাত্রী বা যাত্রীর অভিবাবক চাইলে, পৃথিবীর যে কোন স্থান থেকে, যেকোন গাড়ীর চালকের সাথে কয়েক মিনিটের মধ্যেই যোগাযোগ করতে পারবে। এবং ভাড়াসহ নির্দিস্ট লোকেশন জানিয়ে, গাড়ী ভাড়া করতে পারবে।
আমাদের যাত্রীসেবা সঠিক মানে থাকলে, সেদিন বেশী দূরে নয়, গ্রাম থেকে শহর সব জায়গায় গাড়ীরখোজ ডটকমের জয়যাত্রায়, আমাদের সকল চালক ও মালিকগনকে নিয়ে উদযাপন করতে পারবো। আমাদের একটাই উদ্যেশ্য দেশের যোগাযোগ ব্যাবস্থাকে সহজ ও ঝামেলামুক্ত করে, সকলের জন্য কল্যানকর একটা প্লাটফর্ম তৈরী করা।
একটা দেশে নতুন কিছু নিয়ে কাজ করলে, তা সবার নিকট প্রচার করতে কিছুদিন সময়ের প্রয়োজন। সে সময় পর্যন্ত গাড়ীরখোজ ডটকমের সকল তালিকাভুক্ত ড্রাইভারগন যদি আমাদের এপ, ওয়েবলিংক, বিভিন্ন পোস্ট শেয়ার করে, প্রচারটাকে এগিয়ে নিতে সহযোগীতা করেন। তাহলে এর ফল আপনারাই পাবেন। কারন, এখান থেকে যতগুলো ট্রিপ আসবে, যদি অন্য কোন মাধ্যমে আসতো, তাহলে কি পরিমান কমিশন লাগতো, তা চিন্তা করলেই বুঝতে পারবেন।
এখন প্রশ্ন হলো – হয়ত বলতে পারেন, ফি দিয়ে এড হয়ে, পোস্ট শেয়ার করবো কেন?
তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য, যে নুন্যতম ফি আমরা নিয়ে থাকি, তা একেবারেই নগন্য, যা না নিলে আমাদের ওয়েবসাইট খরচ, স্টাফ খরচ চালিয়ে যাওয়া মুশকিল। এজন্য আমরা নুন্যতম একটা নামমাত্র ফি এর বিনিময় চালক বা মালিকগনের প্রোফাইল তালিকাভুক্ত করি।
ধরুন, ১ বছরের জন্য তালিকা ভুক্ত হয়ে, গাড়ীরখোজ ডটকমের মাধ্যমে ২০ টি লং ট্রিপ পেলেন, যার ভাড়া ছিল গড়ে ৩০০০ টাকা। এখন একটু হিসাব করে নিন, নুন্যতম ২০% হারে কমিশন দিলে, ২০ টি ট্রিপে ১২০০০ টাকা কমিশন দিতে হতো। কিন্তু গাড়ীরখোজ ডটকম কোন প্রকার কমিশন গ্রহন করেনা। বাৎসরিক ফি ৫০০ টাকায় এই সার্ভিস দিয়ে থাকে। ৫০০ টাকা ফি দিয়ে যদি কমপক্ষে ২০ টি ট্রিপও পেয়ে যান, তাহলে ১১৫০০ টাকা কমিশন থেকে রেহাই পেলেন।
আমাদের কিছু আজীবন সদস্য আছেন, এই সদস্যগন ২০২৫ সাল পর্যন্ত কোন ফি দিতে হবেনা। তাদের কথাই চিন্তা করেন!
অনেকে হয়ত ভাবতেছে, এই ওয়েবসাইট কখনও কি লাভজনক হবে?
আমরা তাদেরকে বলি – যার মাথায় যা আছে, সে তা ই ভাববে।
সে কি কখনও ভেবেছিল, যে মোবাইল ছিল – শুধু কথা বলার জন্য! সে মোবাইল দিয়ে এখন মানিব্যাগের কাজটা সেরে ফেলা হচ্ছে কিভাবে?
প্রযুক্তির সাথে শত্রুতা নয়! বরং বন্ধুত্বের হাত বাড়ানো ই বুদ্ধিমানের কাজ।